Events

বাংলাদেশ ও ভারতের প্রধানমন্ত্রীদের যৌথভাবে রেল প্রকল্পসমূহের উদ্বোধন

ভারতীয় হাই কমিশন

ঢাকা

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি 

বাংলাদেশ ভারতের প্রধানমন্ত্রীদের যৌথভাবে রেল প্রকল্পসমূহের উদ্বোধন 

কলকাতার চিৎপুরে আন্তর্জাতিক রেল যাত্রী টার্মিনাসের উদ্বোধন

পতাকা দেখিয়ে কলকাতা-খুলনা বন্ধন এক্সপ্রেসের উদ্বোধনী যাত্রার সূচনা

১০ নভেম্বর ২০১৭ থেকে কলকাতা-ঢাকা মৈত্রী এক্সপ্রেসের দুই প্রান্তে কাস্টমস ইমিগ্রেশন সেবার ঘোষণা

ভারতীয় ঋণরেখায় নির্মিত দ্বিতীয় ভৈরব রেলসেতুর উদ্বোধন

ভারতীয় ঋণরেখায় নির্মিত দ্বিতীয় তিতাস রেলসেতুর উদ্বোধন 

ভারতের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদি এবং বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আজ যৌথভাবে কলকাতার চিৎপুরে আন্তর্জাতিক রেল যাত্রী টার্মিনাসের উদ্বোধন করেন। তাঁরা পতাকা দেখিয়ে কলকাতা-খুলনা বন্ধন এক্সপ্রেসের উদ্বোধনী যাত্রারও সূচনা করেন। কলকাতা থেকে পশ্চিমবঙ্গের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী সুশ্রী মমতা ব্যানার্জিও ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দেন।

দুই প্রধানমন্ত্রী ১০ নভেম্বর ২০১৭ থেকে কলকাতা-ঢাকা মৈত্রী এক্সপ্রেসের দুই প্রান্তে কাস্টমস্ ইমিগ্রেশন সেবা শুরুরও ঘোষণা দেন। এর ফলে ঢাকা থেকে কলকাতায় ট্রেন ভ্রমণে তিন ঘন্টার কাছাকাছি সময় বেঁচে যাবে। 

দুই প্রধানমন্ত্রী যৌথভাবে ভারতীয় ঋণরেখায় নির্মিত ২টি রেলওয়ে সেতুরও উদ্বোধন করেন। বাংলাদেশের মেঘনা নদীর ওপর কিলোমিটার দীর্ঘ ভৈরব রেলসেতু এবং তিতাস নদীর ওপর দ্বিতীয় রেলসেতুর নির্মাণকাজ প্রায় ১০ কোটি মার্কিন ডলার ব্যয়ে সম্পূর্ণ হয়েছে। এই দুটি সেতু ঢাকা চট্টগ্রামের মধ্যে রেলপথে যাত্রা অধিকতর সহজ করবে। 

বন্ধন এক্সপ্রেসের সূচনায় কলকাতার সঙ্গে সরাসরি ট্রেনসেবার জন্য বাংলাদেশের খুলনার মানুষের দীর্ঘ দিনের দাবি পূরণ হল। সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত বন্ধন এক্সপ্রেস ১৬ নভেম্বর ২০১৭ থেকে প্রত্যেক বৃহস্পতিবার চলাচল করবে। 

দুই দেশের মধ্যে বন্ধুত্ব বিশ্বাসের প্রতীক মৈত্রী বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেন দুটি ভারত বাংলাদেশের মধ্যে মানুষে মানুষে যোগাযোগ বৃদ্ধি করবে। এতে ট্রেন যাত্রীদের যাত্রা আরো সহজ এবং সময় সাপেক্ষ হবে 

বাংলাদেশ ভারতের দীর্ঘদিনের উন্নয়ন অংশীদার।৩টি ঋণরেখার আওতায় ভারত বাংলাদেশকে ৮০০ কোটি ডলারের সহজ-শর্ত ঋণ দিয়েছে। আজ উদ্বোধন হওয়া দুটি রেলসেতু প্রথম ঋণরেখার প্রকল্প ছিল।

ঢাকা

০৯ নভেম্বর ২০১৭

****

 
 
 


ঠিকানা: ভারতীয় হাই কমিশন
প্লট নং. ১-৩, পার্ক রোড, বারিধারা, ঢাকা-১২১২
কর্ম ঘন্টা: সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫:৩০ মিনিট পর্যন্ত
(রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত)
টেলিফোন নম্বরসমূহ: +৮৮০-২-৫৫০৬৭৩৬৪
ইপিএবিএক্স: +৮৮০-২-৫৫০৬৭৩০১-৩০৮ এবং +৮৮০-২-৫৫০৬৭৬৪৫-৬৪৯
ফ্যাক্স নম্বর: +৮৮০-২-৫৫০৬৭৩৬১