রেলপথ

ভারত এবং বাংলাদেশের রেলপথ প্রতিষ্ঠিত হয় ব্রিটিশ শাসন আমলে। এদের ইতিহাস একই হওয়ায়, দুই দেশের মধ্যে রেলওয়েসংযোগ খুবই উন্নত। এর মধ্যে কিছু ঐতিহাসিক সংযোগ এখনও চালু আছে, আর বাকিগুলো যাতায়াতের স্বল্পতার কারণেসংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে অথবা ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে গেছে।

বর্তমানে ৪টি আন্ত-দেশীয় রেলওয়ে সংযোগ চালু রয়েছে এবং আরও ২ টি পুনঃ চালু করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

দুই দেশের মধ্যে যাত্রীবাহী ১টি ট্রেন মৈত্রী এক্সপ্রেস রয়েছে যেটি সপ্তাহে চার দিন চলাচল করে।

প্রতি বছর ফেব্রুয়ারিতে বিশেষ একটি তীর্থযাত্রা ট্রেন মেদিনীপুরের ওরশ শরিফে উপস্থিত থাকার জন্য বাংলাদেশের রাজবাড়ীথেকে ভারতের মেদিনীপুর পর্যন্ততীর্থযাত্রীদের পরিবহন করে। বাংলাদেশের আঞ্জুমান-ই-কাদেরিয়া এই বিশেষ ট্রেনেরব্যবস্থা করে থাকে।

দুই দেশের মধ্যে পণ্যবাহী ট্রেন মৌলিক এবং সম্পূরক  বিধির আওতায় চলাচল করে। ভারতীয় রেলওয়ের পণ্যবাহী যান গুলোমালবাহী গাড়ি হিসেবে ব্যবহৃত হয়। প্রতিবছর রেলপথে ২ মিলিয়ন মেট্রিক টন পণ্যবাহী গাড়ি যাতায়াত করে। এর মধ্যে ৯৯% মালবাহী গাড়িই ভারত থেকে বাংলাদেশে ট্রেনে আমদানিকৃত পণ্য। এর মধ্যে প্রধানপ্রধান পণ্য গুলো হচ্ছে জিপসাম, পাথর, খৈল, পেঁয়াজ, চিনি, ভুট্টা এবং খাদ্য-শস্য।

 

 
 
 


ঠিকানা: ভারতীয় হাই কমিশন
প্লট নং. ১-৩, পার্ক রোড, বারিধারা, ঢাকা-১২১২
কর্ম ঘন্টা: সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫:৩০ মিনিট পর্যন্ত
(রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত)
টেলিফোন নম্বরসমূহ: +৮৮০-২-৫৫০৬৭৩৬৪
ইপিএবিএক্স: +৮৮০-২-৫৫০৬৭৩০১-৩০৮ এবং +৮৮০-২-৫৫০৬৭৬৪৫-৬৪৯
ফ্যাক্স নম্বর: +৮৮০-২-৫৫০৬৭৩৬১