Joint inauguration of 3 projects_1.1 Statements & Speeches

Joint inauguration of 3 projects_1.1

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী মহোদয় জনাব তাজুল ইসলাম,
‌পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়, সম্মানিত ডঃ মোমেন সাহেব -  আপনার শহরে এসে আমি আনন্দিত।

 

‌মাননীয় সালমা-জি,
‌সম্মানিত মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী,
সম্মানিত সচিব মোঃ মেজবাহ্ উদ্দিন চৌধুরী,
সিলেটের মেয়র এবং আমার প্রিয় বন্ধুরা,

আপনাদের সকলকে নমস্কার জানাচ্ছি।

সবাইকে শুভেচ্ছা।


সম্মানিত মন্ত্রী মহোদয়গণ এবং সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মহোদয়ের সাথে আজকের এই বিশেষ অনুষ্ঠানের অংশ হতে পেরে আমি আনন্দিত; আমরা যৌথভাবে তিনটি প্রকল্প উদ্বোধন করবো, যেগুলো হলঃ

 

(১) ধূপদীঘিপাড়, সিলেট এলাকার উন্নয়ন
(২) কাষ্টঘর, সিলেটে ক্লিনার কলোনি ভবন নির্মাণ এবং
(৩) চারাদীঘিপাড়, সিলেটে একটি স্কুল ভবন নির্মাণ

২০১৭ সালে স্বাক্ষরিত একটি সমঝোতা স্মারকের অংশ হিসেবে ভারত সরকারের আর্থিক সহায়তায় সিলেট সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক বাস্তবায়িত এই প্রকল্পগুলো সিলেট সিটি কর্পোরেশন এলাকায় শিক্ষাগত অবকাঠামো প্রতিষ্ঠা করে একটি উন্নত টেকসই পরিবেশ সৃষ্টিতে অবদান রাখবে।


এই সব প্রকল্পগুলি স্থানীয় জনগণের জীবনমানের উন্নয়নে অবদান রাখবে এবং এই জনমুখী দৃষ্টিভঙ্গিই ভারতের পররাষ্ট্র নীতির একটি মূল অংশ। উন্নয়নের প্রতি ভারতের দৃষ্টিভঙ্গি হচ্ছে সম্মান, বৈচিত্র্য, ভবিষ্যতের প্রতি ভালবাসা এবং টেকসই উন্নয়নের দ্বারা সূচিত। ভারতের সহযোগিতার সবচেয়ে মৌলিক নীতি হল উন্নয়ন সহযোগীদের সম্মান করা এবং তাদের উন্নয়ন চাহিদাকে অগ্রাধিকার দিয়ে কাজ করা।

বন্ধুগণ,

ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে রয়েছে ইতিহাস, ভাষা ও সংস্কৃতির এক অভিন্ন বন্ধন এবং আমরা প্রতিশ্রুতিশীল বন্ধু ও প্রতিবেশী হিসেবে বাংলাদেশের পাশে আছি। গত বছর আমরা দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন করেছি। বিগত পাঁচ দশকে, আমরা বাংলাদেশের সাথে আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে আরও এগিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি সাধন করতে সক্ষম হয়েছি। আমাদের সম্পর্ক ইতিহাস, ভাষা, ধর্মনিরপেক্ষতাসহ অন্যান্য অনেক সমন্বয়ের উপর ভিত্তি করে তৈরি হয়েছে এবং এই বন্ধন আগামী বছরগুলিতে উত্তোরত্তর আরও শক্তিশালী হতে থাকবে। সর্বোপরি, বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের মধ্য দিয়ে এই অনন্য বন্ধুত্ব গড়ে উঠেছে।

আমি নিশ্চিত, আজ আমরা যেসব বহুমুখী প্রকল্পের উদ্বোধন করছি তা সিলেটের সার্বিক উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখবে এবং এখানকার বাসিন্দাদের জীবনযাত্রার মান উন্নত করবে।

অনেক অনেক ধন্যবাদ।
ধন্যবাদ সবাইকে।